সোমবার, অক্টোবর ২৬, ২০২০

নায়ক জসিমের ২২তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

  • বিনোদন ডেস্ক
  • ২০২০-১০-০৮ ২০:২১:২৬
image

ঢাকায় চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক জসিমকে হারানোর ২২ বছর আজ। ১৯৯৮ সালের আজকের এই দিনে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণজনিত কারণে মাত্র ৪৮ বছর বয়সে মৃত্যু হয় তার। এই অভিনেতার শুরুটা করেছিলেন খল অভিনেতা হিসেবে। এরপর নায়ক হয়ে আকাশ ছোঁয়া জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন। ১৯৭২ সালে ‘দেবর’ সিনেমা দিয়ে চলচ্চিত্র জীবন শুরু করেন তিনি। ১৯৭৩ সালে জসীম প্রয়াত জহিরুল হকের ‘রংবাজ’ ছবিতে খলনায়ক চরিত্রে অভিনয় করেন। নায়ক রাজ্জাকের সঙ্গে ‘রংবাজ’ ছবিতে অভিনয় করেই সবার দৃষ্টি কেড়ে নেন তিনি। তবে জসিমের জনপ্রিয়তার শুরু দেওয়ান নজরুল পরিচালিত ‘দোস্ত দুশমন’ চলচ্চিত্রে।

এখানে তিনি ছিলেন প্রধান খলনায়ক। এরপর নায়ক হিসেবে তিনি প্রথম হাজির হন সুভাষ দত্তের পরিচালনায় ‘সবুজ সাথী’ সিনেমায়। এই অভিনেতার উল্লেখযোগ্য সিনেমাগুলো হলো-‘তুফান’, ‘জবাব’, ‘নাগ-নাগিনী’, ‘বদলা’, ‘বারুদ’, ‘সুন্দরী’, ‘কসাই’, ‘লালু মাস্তান’, ‘নবাবজাদা’, ‘অভিযান’, ‘কালিয়া’, ‘বাংলার নায়ক’, ‘গরিবের ওস্তাদ’, ‘ভাইবোন’, ‘মেয়েরাও মানুষ’, ‘পরিবার’, ‘রাজা বাবু’, ‘বুকের ধন’, ‘স্বামী কেন আসামী’।  

জসিম ১৯৫০ সালের ১৪ আগস্ট ঢাকার নবাবগঞ্জের বক্সনগর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পারিবারিক নাম আবদুল খায়ের জসিম উদ্দিন। স্বাধীনতা যুদ্ধে অস্ত্র হাতে ছুটে গিয়েছিলেন দেশ ও দেশের মানুষের জন্য মুক্তি ছিনিয়ে আনতে। দুই নম্বর সেক্টরে মেজর হায়দারের  নেতৃত্বে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই করেছিলেন। ব্যক্তিজীবনে তিনি বিয়ে করেছিলেন চিত্রনায়িকা সুচরিতাকে। সেই সংসার খুব বেশিদিন টেকেনি। এরপর জসিম বিয়ের মালা বদল করেন আরেক বাংলাদেশের প্রথম সবাক চলচ্চিত্রের নায়িকা পূর্ণিমা সেনগুপ্তার মেয়ে চিত্রনায়িকা নাসরিনের সঙ্গে। সেই সংসারে তার রাতুল, সামী ও রাহুল নামে তিন পুত্র রয়েছে।

 

 


এশিয়ান টাইমস্/এমজেডআর


এ জাতীয় আরো খবর