বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ২১, ২০২১

কাসেম সোলেইমানিকে হত্যায় যুক্ত ছিল জার্মানি

  • আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • ২০২১-০১-০৪ ১৯:৩৬:৫২
image

ঠিক এক বছর আগে মার্কিন হামলায় ইরাকের বাগদাদে নিহত হয়েছিলেন ইরানের জেনারেল কাসেম সোলেইমানি। তার হত্যার বর্ষপূর্তিতে ইরানের সংবাদমাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ খবর প্রকাশিত হলো। ইরানের জেনারেল সোলেইমানি হত্যায় জার্মানি যুক্ত ছিল বলে দাবি করেছে সে দেশের সংবাদমাধ্যম।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘এখনো পর্যন্ত সোলেইমানি হত্যার ষড়যন্ত্রে একাধিক দেশের নাম পাওয়া গিয়েছে। তার মধ্যে ইরাক, সিরিয়া, জর্জিয়ার মতো দেশ যেমন আছে তেমনই আছে জার্মানির নাম।’ অবশ্য এই দাবি করলেও কোনো প্রমাণ উপস্থাপন করেনি ইরানের সংবাদমাধ্যম। তারা কেবলমাত্র সরকারি সূত্রকে উদ্ধৃত করেছে। সরকারের তরফেও কোনো প্রমাণ দেয়া হয়নি। ইরানের বক্তব্য, যুক্তরাজ্যের একটি নিরপাত্তা সংস্থা এই ঘটনায় প্রত্যক্ষ ভাবে জড়িত ছিল। অন্য দিকে, আমেরিকা সোলেইমানি হত্যার জন্য দক্ষিণ পশ্চিম জার্মানির একটি এয়ারবেস ব্যবহার করেছিল। কিন্তু কী ভাবে তা ব্যবহৃত হয়েছিল। কেন অ্যামেরিকা জার্মানির এয়ারবেস ব্যবহার করল, এ সমস্ত বিষয়ে কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। ব্রিটিশ সংস্থাটি সম্পর্কেও বিশেষ কিছু জানানো হয়নি।

রোববার বাগদাদে সোলেইমানি হত্যার বর্ষপূর্তিতে প্রতিবাদ মিছিলের আয়োজন করা হয়েছিল। ব্যাপক নিরাপত্তার মধ্যে প্রতিবাদ অনুষ্ঠিত হয়। মিছিল থেকে সোলেইমানি হত্যার বদলা নেওয়ার দাবি ওঠে। বস্তুত, ইরানও জানিয়েছে, তারা ওই ঘটনার বদলা নেবে। রোববার ইরানের রেভোলিউশনারি গার্ডের প্রধান জানিয়েছেন, সোলেইমানি হত্যার ঘটনা তারা ভোলেননি। ঠিক সময় এর বদলা নেয়া হবে। সোলেইমানি হত্যার পরে অবশ্য ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানীকেও হত্যা করা হয়েছে। সেই ঘটনার পিছনেও আমেরিকা এবং ইসরায়েলের হাত আছে বলে জানিয়েছিল ইরান। রোববার ইরানের প্রশাসন জানিয়েছে, সোলেইমানি হত্যার তদন্ত এখনো চলছে। তদন্ত শেষ হলে সম্পূর্ণ তথ্য সকলের কাছে প্রকাশিত হবে। ইরানের সংবাদমাধ্যমগুলির দাবি, ওই তদন্তের আংশিক রিপোর্ট থেকেই জার্মানি, যুক্তরাজ্যের যুক্ত থাকার বিষয়টি জানা গিয়েছে। সূত্র: ডয়চে ভেলে।

 

 

 

 


এশিয়ান টাইমস্/এমজেডআর


এ জাতীয় আরো খবর